১২ শারীরিক সমস্যার সমাধানে রসুন অনেক কার্যকর

প্রতিনিয়তই আমরা বিভিন্ন ধরনের শারীরিক সমস্যার সম্মুখীন হই। এ জন্য নানা ধরনের ওষুধের দিকে ঝুঁকে পড়তে হয়। কিন্তু আপনি জানেন কী? আমাদের বেশিরভাগ শারীরিক সমস্যার সমাধান আমাদের হাতের কাছেই রয়েছে। আরো সহজ ভাষায় বললে আমাদের ঘরেই রয়েছে।

রসুন তেমনই একটি ভেষজগুণ সমৃদ্ধ মসলা যা আমাদের হাতের কাছেই মজুদ রয়েছে। রসুন আমাদের অনেক রোগ থেকে মুক্তি দিতে সক্ষম। মসলাটির এই ধরনের গুণের কথা হয়তো আমরা অনেকেই জানি না। আসুন জেনে নিই বিভিন্ন শারীরিক সমস্যায় রসুনের ব্যবহার।

কানের ব্যথা উপশম করতে : দুইটি রসুনের কোয়া নিয়ে ছেঁচে পানিতে ভালো করে সিদ্ধ করুন। এরপর গরম পানি ঠান্ডা করে রাখুন। যখন কানে ব্যথা করবে তখন কানে এক থেকে দু ফোটা দিয়ে দিন। দেখবেন কানের ব্যথা কমে যাবে।

মাংশপেশীর ব্যথা কমাতে : রসুন কাঁচা খেলে মাংসপেশীর ব্যথা কমে যায়। এছাড়া অতিরিক্ত ব্যথা হলে রসুনের কোয়া ভালো করে ছেঁচে যেখানে ব্যথা করছে সেখানে সারা রাতের জন্য দিয়ে রাখুন, দেখবেন ব্যথা কমে যাবে।

ব্রণের কালো ও পুরনো দাগ দূর করতে : ব্রণের দাগ দূর করতে রসুন বেশ উপকারী। শুধু রসুনের কোয়া নিয়ে মুখে লাগাতে পারেন, আবার অনেক দিনের পুরনো ব্রণের দাগ দূর করতে রসুনের পেস্ট ব্যবহার করুন। দাগও কমে যাবে, অন্যদিকে ব্রণ থেকেও মুক্তি পাবেন।

ভালো ঘুমের জন্য : রাতে ভালো ঘুমের জন্য রসুন সালাদ হিসেবে খাবেন। ঘুমানোর আগে খাবেন ফলও পেয়ে যাবেন।

বদ্ধ ধমনীর রক্ত সঞ্চালন বাড়াতে : রসুন বদ্ধ ধমনীর জন্য বেশ কার্যকরী। এটি রক্ত সঞ্চালন বাড়ায়। নিয়মিত খাবারের সঙ্গে কাঁচা রসুন খেলে উপকার পাবেন। বিশেষ করে সকালের নাস্তার সাথে প্রথমেই এক অথবা দুই কোয়া রসুন খেতে পারেন।

বাতের ব্যথা কমাতে : শরীরের যেখানে বাতের ব্যথা রয়েছে সেখানে রসুন টুকরো করে কেটে ভালো করে ঘষতে থাকুন। নিয়মিত ব্যবহারে বাতের ব্যথা কমে যাবে।

উচ্চ রক্তচাপ কমাতে : উচ্চ রক্তচাপ কমাতে রসুনের বেশ কার্যকরী ভুমিকা রয়েছে। নিয়মিত কাঁচা রসুন খেতে পারেন। এছাড়া রসুনের সিরাপ তৈরি করে নিতে পারেন। রসুন কুচি করে তাতে চিনি এবং এক গ্লাস পানি দিয়ে জাল দিন। তারপর প্রতিদিন ২ টেবিল চামচ করে খেতে থাকুন। উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে।

ধূমপানের বাসনা থেকে মুক্তি : ধূমপানের বাসনা থেকে মুক্তির জন্য খালি পেটে রসুনের কোয়া খাওয়ার অভ্যাস করুন। এছাড়া লেবুর রসের সঙ্গে রসুনের কোয়া মিশিয়ে খেতে থাকুন।

ঠান্ডা ও কফ সমস্যা : রসুনের এন্টি বায়োটিক গুণ খুব সহজে ঠান্ডা ও কফ থেকে আরাম দেয়। এটি কফের ইনফেকশন থেকেও মুক্তি দেয়।

এলার্জির সমস্যা রোধ করতে : এলার্জির সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে মধু, লেবুর রস এবং রসুন কুচি মিশিয়ে একসাথে খান। উপকার নিজেই পান।

দাঁতের ব্যথা কমাতে : দাঁতের ব্যথা কমানোর জন্য ব্যথা হওয়া স্থানে রসুনের পেস্টের সঙ্গে লবণ মিশিয়ে লাগান। ব্যথা কমে যাবে।

চুল পড়া কমাতে : চুল পড়া কমানোর জন্য ১ চা-চামচ রসুনের পেস্ট, সামান্য রোজমেরি চা-পাতা, ১ টেবিল চামচ মধু এবং সামান্য লেবুর রস দিয়ে মাথায় দিন। গোসলের আগে দিয়ে অনেকক্ষণ রাখুন। চুল পড়া কমে যাবে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*